২১ লাখ টাকায় বিক্রি হলো একজোড়া তরমুজ!

আন্তর্জাতিক

জা’পানের উত্তরাঞ্চলীয় ইউবারি শহর উন্নতমানের তরমুজের জন্য প্রসিদ্ধ। প্রতি মৌসুমে ইউবারি তরমুজের জন্য মুখিয়ে থাকে জা’পানিরা। সম্প্রতি শহরটির স্থানীয় সাপ্পোরো বাজারে নিলামে ২৭ লাখ ইয়েনে (২০ লাখ ৯৫ হাজার টাকা)

বিক্রি হয়েছে এক জোড়া গো’লাকৃতির ইউবারি তরমুজ। জা’পানের প্রথা অনুযায়ী তরমজু যত বড় ও যত গোল হয় দামও তত বেশি। তবে এই দাম দেখে অনেকেরই চোখ কপালে উঠেছে। কিন্তু এত দাম দিয়ে তরমুজ দুটির ক্রেতার গল্প অন্যরকম। তরমুজ দুটি কিনেছে স্থানীয় শি’শু খাদ্য প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান হোক্কাইডো প্রোডাক্টস লিমিটেড।

তারা কিন্তু নিজেদের জন্য এত দাম দিয়ে এই তরমুজগুলো কেনেনি, কিনেছে ক্রেতাদের জন্যই। হোক্কাইডো প্রোডাক্ট লিমিটেড জানে, এমন তরমুজের একটা টুকরো পেলেও ক্রেতারা নিজেকে ধন্য মনে করবেন, তরমুজ খাওয়ার খুশির অ’ভিজ্ঞতার কথা মনে রেখে ভবিষ্যতে বারবার কিনবেন হোক্কাইডোর পণ্য।

তাই প্রতিষ্ঠানটি ঘোষণা দিয়েছে যে, মূল্যবান তরমুজ দুটো সমান ১০ ভাগে ভাগ করে লটারির আয়োজন করবে। যে ১০ সৌভাগ্যবান বা সৌভাগ্যবতীর নাম উঠবে লটারিতে, তারাই হবেন এক টুকরো অমৃ’তসম তরমুজের মালিক। গত মৌসুমেও এরকম চড়াদামে দুটি তরমুজ কিনেছিল হোক্কাইডো প্রোডাক্ট লিমিটেড। তবে সেবার প্রতিটি তরমুজের দাম পড়েছিল ৯০০ ইউরোর মতো। কিন্তু এবার তার চেয়ে বিশ গুণের বেশি দাম দিয়ে প্রতিষ্ঠানটি দুটি তরমুজ কিনেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *