ইসরায়েলের যু’দ্ধবিমানের উদ্দেশ্যে ক্ষেপণা’স্ত্র ছুড়ল হামাস

আন্তর্জাতিক

ফিলিস্তিনের ইসলামী প্রতিরোধ আ’ন্দোল’ন হামাস সাম্প্রতিক গা’জা যু’দ্ধের সময় দখলদার ইস’রায়ে’লি বাহিনীর একটি যু’দ্ধবিমান ভূপাতিত করার চেষ্টা করে। বিষয়টি স্বীকার করেছেন খোদ ই’সরায়ে’লি বিমানবাহিনীর প্রধান জেনারেল আমিকাম নুরকিন।

ইসরায়েলি টিভি চ্যানেল টুয়েলভকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে বিষয়টি স্বীকার করে এই জেনারেল বলেন, তাদের জ’ঙ্গিবি’মান লক্ষ্য করে ক্ষে’পণা’স্ত্র ছু’ড়েছিল হামাস। কিন্তু সেটা বিমানে আ’ঘা’ত হানেনি।

গত ১০ মে শুরু হওয়া যু’দ্ধ চুক্তির মাধ্যমে শেষ হয় গত ২১ মে। ই’সরায়ে’লি বিমানবাহিনীর প্রধান বলেন, তাদের সামরিক বি’মানবন্দরগুলো এখন হামাসের ক্ষে’পণা’স্ত্রের আওতায় চলে এসেছে।

ফলে সেগুলো এখন মারা’ত্মক ঝুঁ’কির মধ্যে রয়েছে। হামাসের বর্তমান ক্ষে’পণা’স্ত্রগুলো সহজেই ই’সরায়ে’লের সামরিক বিমানবন্দরগুলো পর্যন্ত পৌঁছাতে পারবে।

এ ছাড়া হামাস ও গা’জার অন্যান্য প্রতিরোধ সংগঠনগুলো যে আগের চেয়ে আরো সুসংহত, সেটা সাম্প্রতিক যু’দ্ধে স্পষ্ট হয়েছে বলেও স্বীকার করেন জেনারেল আমিকাম নুরকিন।

প্রসঙ্গত, গত মাসের ওই যু’দ্ধে ই’সরায়ে’লের দখলদার বাহিনী গাজায় নির্বিচার বিমান থেকে বোমা হা’ম’লা চালায়। এতে অনেক বেসামরিক ভবন ও ঘরবাড়ি বিধ্বস্ত হয়। শিশু ও নারীসহ অন্তত ১৫৪ জন ফিলিস্তিনি নি’হ’ত হন।

জবাবে হামাস ও গা’জার অন্যান্য প্রতিরোধ সংগঠনগুলোও ইসরায়েলে সাড়ে ৪ হাজারের মতো র’কে’ট ও ক্ষে’পণা’স্ত্র ছোড়ে। এতে অন্তত ১২ ইস’রায়ে’লি প্রাণ হারায়। এ ছাড়া বিভিন্ন স্থাপনাও ক্ষ’তিগ্র’স্ত হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *