সাকিবের আচরণ নিয়ে বিশ্লেষকদের মত

খেলা

সাকিব আল হাসান, নামটার সঙ্গে যেমন জড়িয়ে আছে বাংলাদেশ ক্রিকেটার হাজারো গৌরবগাঁথা, তেমনি এই নামটাই জন্ম দিয়েছে একের পর এক ন্যক্কারজনক ঘটনা। গ্যালারিতে দর্শক পেটানো থেকে শুরু করে, নানা সময়ে বিসিবির বিভিন্ন সিদ্ধান্তকে বৃদ্ধাঙুলি দেখিয়ে এসেছেন মিস্টার সেভেন্টি ফাইভ।

শেষমেষ বাজিকরদের সঙ্গে যোগাযোগ রক্ষা এবং তা নিয়ে কোনো তথ্য না জানানোর অপরাধে এক বছরের নিষেধাজ্ঞা তো বিশাল এক ধাক্কাই দিয়ে গেল বাংলাদেশ ক্রিকেটকে। তবে, নিষেধাজ্ঞা থেকে ফিরে আসার পর সবাই ভেবেছিল এবার হয়তো বদলে যাবেন সাকিব।

কিন্তু, সেই ভাবাতেই শেষ। মাঠের সাকিব যেমন তেমনই হোক না কেন, বিতর্ক জন্ম দিতে তার যেন কোনো জুড়ি নেই। তাই তো, শুক্রবার (১১ জুন) ডিপিএলে আবাহনীর বিপক্ষে ম্যাচে আম্পায়ারের সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ জানাতে গিয়ে এভাবে ফুঁসে উঠলেন সাকিব আল হাসান।তবে, এতদিন সাকিবের সব কর্মকাণ্ডেই সমর্থন করার জায়গা থাকত অল্পবিস্তর। কিন্তু, এবার কোনো যুক্তিতেই তাকে সমর্থন দেওয়া যায় না বলে মত ক্রিকেট বিশ্লেষকদের।

ক্রিকেটীয় দৃষ্টিকোণ থেকে কোন যুক্তি দিয়েই সাকিবের ঘটনাকে সমর্থন করা যায় না। মাঠে সাকিবের আচরণ একেবারেই অশোভন ছিলো বলে মন্তব্য করেছেন বিসিবির সাবেক পরিচালক খন্দকার জামিল উদ্দিন।

তিনি বলেন, আজকে সাকিব যে ঘটনাটা ঘটাল এ বিষয়ে যে সিদ্ধান্তই হোক, ক্রিকেটীয় দৃষ্টিকোণ থেকে তা কোনোভাবেই গ্রহণ করার মতো না। সাকিবের মতো একজন খেলোয়াড়ের কাছ থেকে এমনটা গ্রহণযোগ্য না।

তবে, অযথা তো আর মাঠের মধ্যে ক্ষিপ্র হয়ে উঠেননি সাকিব। আম্পায়ারের বাজে সিদ্ধান্তই তাকে প্ররোচিত করেছে অনেকাংশে। ঘরোয়া ক্রিকেটের এ আম্পায়ারিং এর মান নিয়েও প্রশ্ন অনেকদিনের। তবে, সে জায়গায় চিরকালই নিরব ক্রিকেট বোর্ড।খন্দকার জামিল উদ্দিন বলেন, একেবারে নিম্ন মানের আম্পায়ারিং হচ্ছে। বিভিন্ন দলের পক্ষে আম্পায়ারিং হচ্ছে। বিভিন্ন দলকে ফেবার করা হচ্ছে। এটা গ্রহণযোগ্য হতে পারে না। এভাবে চলতে থাকলে ঘরোয়া ক্রিকেট মুখ থুবড়ে পড়বে। সব বিতর্ক পেছনে ফেলে আবারও মাঠের ক্রিকেট মনোযোগী হবেন সাকিব আল হাসান, এটাই এখন আশা সমর্থক থেকে ক্রিকেট বোদ্ধা সবার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *