তালেবানের সংগে ভারতের গোপন সম্পর্ক প্রকাশ

আন্তর্জাতিক

আফগানিস্তানের রাজনীতিতে নিজেদের অবস্থান বদলে তালেবানের সংগে যোগাযোগ শুরু করেছে ভারত। সম্প্রতি তালেবানের শীর্ষ নেতৃত্বের সংগে যোগাযোগের জন্য একটি চ্যানেল তৈরি করেছে তাঁরা।

এই নেতাদের মধ্যে রয়েছেন প্রভাবশালী মোল্লা আব্দুল ঘানি বারাদার। এতদিন ধরে তালেবান নেতাদের এড়িয়ে চলার যে অবস্থান নয়াদিল্লির ছিলো সেখানে এটি ‘তাৎপর্যপূর্ণ’ মোড় বলে উল্লেখ করেছে হিন্দুস্তান টাইমস।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ভারতের কয়েকজন জ্যেষ্ঠ নিরাপত্তা কর্মকর্তা তালেবানের সেইসব নেতার সংগে যোগাযোগ শুরু করেছেন যারা ‘জাতীয়তাবাদী’ এবং যাদের ওপর পাকিস্তান ও ইরানের খুব বেশি প্রভাব নেই।

গত কয়েক মাস ধরে তালেবান নেতাদের সংগে গোপন যোগাযোগ রক্ষা করছে ভারত। যদিও এখনো দুই পক্ষের মধ্যে আনুষ্ঠানিক কোনো বৈঠক হয়েছে কি না তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

গত ২০ বছর ধরে তালেবানের সংগে ভারতের কোনো যোগাযোগ ছিলো না। অপরদিকে গত তিন দশক ধরে পাকিস্তান এবং দেশটির গোয়েন্দা সংস্থা আইএসআই গোষ্ঠীটিকে মদদ দিয়ে আসছে বলে ধারনা করা হয়। তালেবানকে মদদ দেওয়ার জন্য ভারতের পক্ষ থেকেও বহুবার পাকিস্তানকে অভিযুক্ত করা হয়েছে।

সম্প্রতি আফগানিস্তান থেকে সেনা সরিয়ে নিতে শুরু করেছে যুক্তরাষ্ট্র এবং ন্যাটো। আগামী ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে দেশটি থেকে সব বিদেশি সেনা সরিয়ে নেওয়ার কথা। মার্কিন সেনা প্রত্যাহার শুরু হওয়ার পর থেকে সরকারি সেনাদের ওপর আক্রমণ জোরদার করেছে তালেবান।

অপরদিকে দেশটির রাজনৈতিক ভবিষ্যৎ নির্ধারণে শান্তিচুক্তির জন্যও আলোচনায় অংশ নিয়েছেন তালেবান নেতারা। দেশটিতে দীর্ঘদিনের শান্তি প্রক্রিয়ায় পাকিস্তানকে গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *