নিজেকে ফিরে পেয়েছেন আশরাফুল করলেন দুর্দান্ত হাফ সেঞ্চুরি

খেলা

অবশেষে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে হাফ সেঞ্চুরির দেখা পেয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল। আবহনী লিমিটেডের ক্লাবের বিপক্ষে ৩৬ বলে টুর্নামেন্টের ব্যক্তিগত প্রথম হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিলেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

১৭৪ রানের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে দলীয় ১২ রানের মধ্যে সৈকত আলী এবং ইমরুল কায়েসের উইকেট হারিয়ে বড় ধরনের চাপে পড়ে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব।

শুরুর দিকে সেই চাপ ভালোভাবেই সামাল দেন মোহাম্মদ আশরাফুল এবং নাসির হোসেন। দুইজন মিলে গড়ে তোলেন ৬৯ রানের পার্টনারশিপ। দলীয় ৮১ রানের মাথায় ২২ বলে চারটি চার এবং দুটি ছক্কার সাহায্যে ৩৪ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন নাসির হোসেন।

তবে নুরুল হাসান কে সাথে নিয়ে জয়ের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। এই রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ১৩.৪ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১১৯ রান সংগ্রহ করেছে শেখ জামাল। ২৭ রান করে অপরাজিত রয়েছেন নুরুল হাসান সোহান এবং ৫০ করে অপরাজিত রয়েছেন মোহাম্মদ আশরাফুল।

এর আগে লিটন দাসের ৭০ রানের সুবাদে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে ১৭৪ রানের টার্গেট দিয়েছে আবহনী লিমিটেড। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে ইনিংসের প্রথম ওভারেই প্যাভিলিয়নে ফেরেন টুর্নামেন্টের অন্যতম সেরা ব্যাটসম্যান মুনিম শাহরিয়ার।

শূন্য রানে তাকে প্যাভিলিয়নে ফেরেন এনামুল হক। তবে এরপর ৭৬ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন মহাম্মদ নাইম এবং লিটন দাস। ২৮ বলে 6টি বাউন্ডারি হাঁকিয়ে ৪২ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ।

এরপর ৬ রান করে নাজমুল হোসেন শান্ত প্যাভিলিয়নে ফিরেলে মোসাদ্দেক হোসেন এবং আফিফ হোসেনের সাথে ছোট দুটি পার্টনারশিপ গড়েন লিটন দাস। অধিনায়ক মোসাদ্দেক ১৬ এবং আফিফ হোসেন ১৯ রান করে প্যাভিলিয়নের ফিরলেও ৭০ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন লিটন দাস। ৫১ বলে ৮টি চার এবং একটি ছক্কার সাহায্যে ৭০ করেন লিটন দাস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *