দেখে নিন ইউরোর শেষ ষোলোতে কে কার মুখোমুখি

খেলা

ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপের গ্রুপ পর্ব শেষ। ১১ জুন থেকে দারুণ ফুটবলের পসরা সাজিয়ে ইউরোপীয় দলগুলো জায়গা করে নিয়েছে শেষ ষোলোতে। ইতোমধ্যে শেষ ষোলোতে যেসব দল মুখোমুখি হবে তার সূচিও নিশ্চিত হয়ে গেছে। শেষ-১৬ এর ম্যাচগুলো-

ওয়েলস বনাম ডেনমার্ক, ২৬ জুন রাত ১০টা ইতালি বনাম অস্ট্রিয়া, ২৭ জুন রাত ১টা নেদারল্যান্ডস বনাম চেক রিপাবলিক, ২৭ জুন, রাত ১০টা বেলজিয়াম বনাম পর্তুগাল, ২৮ জুন, রাত ১টা ক্রোয়েশিয়া বনাম স্পেন, ২৮ জুন, রাত ১০টা ফ্রান্স বনাম সুইজারল্যান্ড, ২৯ জুন, রাত ১টা ইংল্যান্ড বনাম জার্মানি, ২৯ জুন, রাত ১০ টা সুইডেন বনাম ইউক্রেন, ৩০ জুন, রাত ১টা (তারিখ ও সময় আন্তর্জাতিক সময় অনুযায়ী)

যে ম্যাচে চোখ রাখতে পারেন ইংল্যান্ড ও জার্মানির ফুটবলীয় লড়াই ঐতিহাসিকভাবেই বেশ বিখ্যাত ও আলোচিত। ওয়েম্বলিতে মুখোমুখি হতে যাচ্ছে গ্যারেথ সাউথগেট ও জোয়াকিম লোয়ের দল। ইতোমধ্যে জার্মানির কোচ লো বলেছেন, “আমরা ইংল্যান্ড যাচ্ছি। ইংল্যান্ডের বিপক্ষে লন্ডনে, ওয়েম্বলিতে খেলা সবসময়ই দারুণ।”

বিশ্লেষক নাবিল কায়সার বলছেন, কোন বড় টুর্নামেন্টেই জার্মানিকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। জার্মানি সবসময়ই ঘুরে দাঁড়ানোর মতো দল। জার্মানদের মন-মানসিকতার দৃঢ়তাই বড় ব্যাপার। টুর্নামেন্টের অন্যতম ফেভারিট দল পর্তুগালের বিপক্ষে ৪টি গোল দিয়েছে জার্মানি। আবার ইংল্যান্ডকেও বাতিলের খাতায় ফেলা যাবেনা বলছেন তিনি।

বর্তমান ফুটবলের বাজারদর হিসেব করলে ইংল্যান্ডের দলটির ফুটবলারদের মোট দাম, ইউরোর দলগুলোর মধ্যে সবচেয়ে বেশি। প্রায় ১.৩ বিলিয়ন প্রাইসট্যাগের এই দলটি এখনো পর্যন্ত কোনো গোল হজম করেনি। যদিও গ্যারেথ সাউথগেটের দলের সমন্বয় এবং একাদশ বেশ সমালোচনা হজম করেছে ইতোমধ্যে।

কিন্তু গ্রুপ পর্বে ইংল্যান্ড ২টি জয় ও একটি ড্র দিয়ে ইংল্যান্ড অনায়াসেই নিজেদের গ্রুপে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। মজার ব্যাপার হচ্ছে, ইংল্যান্ডের বর্তমান কোচ সাউথগেট ওয়েম্বলিতেই ১৯৯৬ সালের ইউরো ফাইনালে জার্মানির বিপক্ষে পেনাল্টি থেকে গোল মিস করেন। পেনাল্টি শুটআউটে জার্মানি ইংল্যান্ডের মাঠ থেকে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে জিতে শিরোপা নিয়েছিল।

বেলজিয়াম বনাম পর্তুগাল এই ম্যাচটিও বেশ আকর্ষণীয় বিশ্বব্যাপী ফুটবল ভক্তদের জন্য। একদিকে ডি ব্রুইনা, লুকাকু অন্যদিকে ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো। এখন পর্যন্ত ইউরো চ্যাম্পিয়নশিপে চলমান আসর এবং সর্বকালের সবচেয়ে বেশি গোলের মালিক রোনালদো।

এবারের মৌসুমে মাঠে পা থেকে বল হারিয়েছেন আবার সেই বল নিতে ছুটে গেছেন, মাঝমাঠে নেমে এসেছেন, সতীর্থদের উজ্জীবিত করেছেন, পেনাল্টি থেকে স্নায়ুচাপ জয় করে গোল করেছেন। জার্মানির বিপক্ষে পুরো মাঠ ১০ থেকে ১৫ সেকেন্ডের মধ্যে অতিক্রম করে কাউন্টার অ্যাটাকে গোল করেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

রোনালদোর বর্তমান ফর্মকেই বড় করে দেখছেন বিশ্লেষক নাবিল কায়সার। তিনি বলেন, রোনালদো খেলছেন এবং খেলাচ্ছেন। তবে বেলজিয়াম টিম হিসেবে অনেক বেশি একতাবদ্ধ এখনো পর্যন্ত। যদিও তেমন বড় প্রতিপক্ষের মুখোমুখি হয়নি দলটি। কিন্তু ডেনমার্কের বিপক্ষে ম্যাচে পিছিয়ে পড়ার পর দলটির দৃঢ়তা প্রকাশ পেয়েছে।

বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে লুকাকু বরাবরই ভালো খেলেন, তার ওপর এবারে ইতালিয়ান লিগে ইন্টার মিলানের জয়ে বড় ভূমিকা পালন করেছেন। কেভিন ডি ব্রুইনা ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের বর্ষসেরা ফুটবলার নির্বাচিত হয়েছেন। সব মিলিয়ে বেলজিয়ামের ‘সোনালী প্রজন্ম’ এবারে একটা ভালো অবস্থানে আছে।

তবে আরো যেসব ম্যাচ আছে তার মধ্যে স্পেন ও ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচটি জমে উঠতে পারে। স্পেন ও ক্রোয়েশিয়া দুই দলই বেশ লেজেগোরে অবস্থায় টুর্নামেন্ট শুরু করলেও গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে এসে তারা ছন্দ খুঁজে পায়। লুকা মডরিক ইতোমধ্যে টুর্নামেন্টের অন্যতম সেরা একক পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন।

স্পেনের সার্জিও বুসকেটস নেতৃত্ব দিচ্ছেন সামনে থেকে। এবারের ইউরোর অন্যতম নিখুঁত দল ইতালি। প্রথম পর্বে সাত গোল দিয়ে কোনো গোল হজম করেনি। শেষ ১২টি ম্যাচে একটি গোলও খায়নি রবার্তো মানচিনির দল।

ইতালির প্রতিপক্ষ অস্ট্রিয়া ওয়েলস ও ডেনমার্কের ম্যাচটি রোমাঞ্চ ছড়াতে পারে বিশেষত ডেনমার্ক ক্রিস্টিয়ান এরিকসেনের সেই আলোচিত মাটিতে লুটিয়ে পড়ার ঘটনার পর যেভাবে মাঠের খেলায় ঘুরে দাঁড়িয়েছে তাতে বিশ্লেষকরা বাহবা দিচ্ছেন। আর ওয়েলসের আছেন গ্যারেথ বেল, অ্যারন রামজের মতো অভিজ্ঞ ফুটবলাররা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *